ফের নারায়ণগঞ্জে একসাথে ৩ নবজাতকের জন্ম

ফের নারায়ণগঞ্জে একসাথে ৩ নবজাতকের জন্ম

স্বপ্ন, পদ্মা ও সেতুর পর নারায়ণগঞ্জে আরো এক নারী একসাথে ৩ সন্তানের মা হয়েছেন। নারায়ণগঞ্জের একটি বেসরকারি হাসপাতালে সোমবার রাতে লাইজু নামের এক নারীর ওই ৩ সন্তানের জন্ম দেন।

ওই হাসপাতালের ডা: নুর-ই-নাজমা লিমার চিকিৎসায় দীর্ঘ দিন পর মা হন লাইজু। সন্তান ৩টি জন্মের পর ডা: লিমার ভাই বাবু ফেসবুকে স্ট্যাটাসে লিখেছেন, ‘আলহামদুল্লিলাহ্। আল্লাহ তায়ালার রহমতে আমার বোন

ডা: নুরে নাজমা লিমার চিকিৎসায় মিসেস লাইজু দীর্ঘ বছর পর একসাথে তিন সন্তানের মা হলেন। মা ও বাচ্চারা সকলেই সুস্থ্য আছেন। ডা: নুরে নাজমা লিমা ও তার টিম এবং তিন নবজাতকদের জন্য সবাই দোয়া করবেন।’

আরও পড়ুন: ওমর সানী-মৌসুমী-জায়েদ খান ইস্যুতে কয়েক দিন ধরে বেশ উত্তাল সিনেমাপাড়া। জায়েদ খানের বিরুদ্ধে মৌসুমীকে বিরক্ত ও সংসার ভাঙার অভিযোগ আনেন ওমর সানী। তবে স্বামীর বিপক্ষে অবস্থান নিয়ে জায়েদকে ‘ভালো ছেলে’ আখ্যা দেন মৌসুমী। যদিও পরবর্তীতে তিনি ছেলে ফারদিনের মাধ্যমে জানান, ‘যা বলেছি রাগের মাথায়’।

চলমান এই তর্ক-বিতর্কে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেকেই প্রশ্ন তুলেছিলেন, তবে কি এই জনপ্রিয় তারকা দম্পতির সংসারে ভাঙনের সুর বাজছে? তারা কি আলাদা থাকছেন? নেটিজেনদের এমন কৌতুহলী ও অনুমাননির্ভর প্রশ্নের জবাব দেন চিত্রনায়ক ওমর সানী। পরবর্তীতে মৌসুমী-ওমর সানী তার পরিবার নিয়ে রাতে খাবার টেবিলে বসে ছবি ও ভিডিও আপলোড করেন। তখন ভক্তকূলের প্রশংসার জোয়ারে ভাসতে শুরু করে তারা। ওপরের প্রশ্নের উত্তর মিলেছে।

ইতোমধ্যে সংসার নিয়ে চলমান এই দ্বন্দ্বের মধ্যেই ঢাকাই সিনেমার ‘প্রিয়দর্শিনী’খ্যাত চিত্রনায়িকা মৌসুমীর নতুন সিনেমার পোস্টার প্রকাশ পেয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। বেছে বেছে কাজ করলেও রুপালি জগতে এখনও তার উপস্থিতি রয়েছে। দীর্ঘদিন পরে সুখবর দিলেন তিনি। মৌসুমী অভিনীত নতুন সিনেমা ‘ভাঙন’ মুক্তি পেতে যাচ্ছে। এই সিনেমার কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। সিনেমাটির নির্মাতা মির্জা সাখাওয়াৎ হোসেন ফেসবুকে পোস্টারটি প্রকাশ করেন জানান দেন। ২০২০-২১ অর্থবছরে সাধারণ শাখায় সরকারি অনুদান পেয়েছে ‘ভাঙন’। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পরিচালক।

পোস্টারে মৌসুমী ও ফজলুর রহমান বাবুকে দেখা গেছে। এতে নায়িকার মাথায় একটি ঝুড়ি রয়েছে। আর বাবু বাঁশি বাজাচ্ছেন। ‘ভাঙন’ সিনেমায় রেলস্টেশনে জড়ো হওয়া কিছু প্রান্তিক ও ছিন্নমূল মানুষের কথা তুলে ধরা হবে। যেখানে হকার, পতিতা, বংশীবাদক, পকেটমার নানা ইতিবাচক ও নেতিবাচক মানুষ রয়েছে। তাদের জীবনযাত্রা, বেঁচে থাকা ও প্রত্যাশার গল্প নিয়ে এই সিনেমা। এমনটাই জানান নির্মাতা মির্জা সাখাওয়াৎ হোসেন। সব কিছু ঠিক থাকলে খুব শিগগিরই মুক্তি দেওয়া পাচ্ছে মৌসুমী অভিনীত এই চলচ্চিত্রটি।


Leave a Reply

Your email address will not be published.