যে কারণে পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যাবে না বিএনপি, জানা গেল

যে কারণে পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যাবে না বিএনপি, জানা গেল

রাজনীতি: দলনেত্রী খালেদা জিয়া ও ড. মুহম্মদ ইউনূসকে নিয়ে মন্তব্যর সমালোচনা করে পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সরকারের আমন্ত্রণ প্রত্যাখ্যান করেছেন বিএনপি।

বুধবার বিকেলে গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ সিদ্ধান্তের কথা জানান বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

সরকারের পক্ষ থেকে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আপনারা যাবেন কি না প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘যারা মানুষ হত্যা করে, যারা এ দেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী, জনপ্রিয় নেত্রী দেশনেত্রী

বেগম খালেদা জিয়াকে পদ্মায় ডুবিয়ে মারতে চায়, যারা এ দেশের সবচেয়ে প্রতিথযশা এবং এ দেশের জন্য সবচেয়ে বড় সম্মান অর্জন করে আনা মানুষ ড. মুহম্মদ ইউনূসকে চুবিয়ে চুবিয়ে মারতে চায়,

তাদের আমন্ত্রণে বিএনপির কোনো নেতা বা কোনো কর্মী কখনোই যেতে পারে না। এর আগে বুধবার সকালে নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সেতু বিভাগের

উপসচিব দুলাল চন্দ্র সূত্রধর পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মহাসচিবসহ সাত নেতার নামে আমন্ত্রণ কার্ড দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভীর কাছে হস্তান্তর করেন।

আমন্ত্রণ পাওয়া অন্য নেতারা হলেন স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম থান ও ভাইস চেয়ারম্যান হাফিজ উদ্দিন আহমেদ। তবে দাওয়াত পাননি দলটির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।


Leave a Reply

Your email address will not be published.