গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে পুলিশ নিয়ে হাজির এসি ল্যান্ড! জানা গেলো চাঞ্চল্যকর তথ্য

গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে পুলিশ নিয়ে হাজির এসি ল্যান্ড! জানা গেলো চাঞ্চল্যকর তথ্য

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় দশম শ্রেণি পড়ুয়া এক শিক্ষার্থীকে (১৪) বাল্যবিবাহ

থেকে রক্ষা করলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্রশান্ত চক্রবর্তী।

বুধবার (২২ জুন) রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলার উত্তর ইউনিয়নের কল্যাণপুর দক্ষিণপাড়া অভিযান

চালিয়ে ওই বাল্যবিবাহটি বন্ধ করা হয়। এ সময় কনে পরিবারের মুচলেকা নেয় উপজেলা প্রশাসন। এলাকাবাসী ও উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে,

উপজেলার উত্তর ইউনিয়নের কল্যানপুর (দক্ষিণ পাড়া) বাসিন্দা মো. আবু ছায়েদের স্কুল পড়ুয়া মেয়ের গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান চলছিল। কয়েকদিন আগে

মেয়েটি স্কুলে তার বান্ধবীদের কাছে কান্নাকাটিও করেছে। সে বয়স বাড়িয়ে বিয়ে করবে না বলে জানালেও মেয়েটির পরিবার তার কথা শোনেনি। তাকে বিয়ে দেয়ার জন্য সব আয়োজন চলছিল। ইতোমধ্যে অতিথিদের নিমন্ত্রণ দেয়া, প্যান্ডেল নির্মাণসহ বিয়ের সবকাজ শেষ করেছে তার পরিবার। বৃহস্পতিবার ছিল বিয়ে, বুধবার চলছিল গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান।

এরই মধ্যে গ্রামবাসী বাল্যবিয়ের বিষয়টি আখাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অগ্যজাই মারমাকে অবহিত করেন। পরে আখাউড়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্রশান্ত চক্রবর্তীর নেতৃত্বে আখাউড়া থানা পুলিশ সন্ধ্যা রাতে ওই সরেজমিনে ওই বাড়িতে গিয়ে ঘটনার সত্যতা পায়। এ সময় বিয়ের সব আয়োজন বন্ধ করা হয়। আখাউড়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্রশান্ত চক্রবর্তী জানান, মেয়ের পরিবারের মুচলেকা নেয়া হয়েছে। তার বয়স ১৮ হওয়ার আগে কোনো অবস্থাতেই বিয়ে দিবেন না বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তারা।


Leave a Reply

Your email address will not be published.