মাত্রপাওয়াঃদেশে করোনা শনাক্তের নতুন রেকর্ড

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে একদিনে মৃত্যু বরণ করেছে আরও ২০৩ জন। এই সময়ে নতুন করে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন আরও ১২ হাজার ১৯৮ জন।

মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) বিকালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে এই তথ্য জানানো হয়।প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা যায়, দেশে একদিনে মারা যাওয়াসহ মোট প্রাণহানি হয়েছে ১৬ হাজার ৮৪২ জন।

এছাড়া মোট আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ১০ লাখ ৪৭ হাজার ১৫৫ জন।গত ২৪ ঘন্টায় মোট ৪১ হাজার ৭৫৫টি নমুনা পরীক্ষা করে এই তথ্য জানা গেছে। এসময় পরীক্ষার তুলনায় আক্রান্তের হার নির্ণয় হয় ২৯.২১ শতাংশ।

এর আগে সোমবার (১২ জুলাই) দেশে করোনায় মারা যান আরও ২২০ জন। এসময় দেশে করোনার ইতিহাসে একদিনে সর্বোচ্চ ১৩ হাজার ৭৬৮ জন আক্রান্ত শনাক্ত হন।

আরও পড়ুন:চলমান কঠোর লকডাউন আগামী বৃহস্পতিবার থেকে ৮ দিনের জন্য শিথিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এরপর ২৩ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত দুই সপ্তাহের কঠোর বিধিনিষেধ আবারও শুরু হবে।

এ সময়ে বিধিনিষেধ মানাতে আগের মতোই পুলিশ, বিজিবি ও র্যা বের সঙ্গে মাঠে থাকবে সেনাবাহিনী।মঙ্গলবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। কঠোর বিধিনিষেধের ক্ষেত্রে ২৩টি শর্ত দেয়া হয়েছে প্রজ্ঞাপনে।

গত ১ জুলাই থেকে শুরু হওয়া চলমান কঠোর বিধিনিষেধের ১৪ দিন পূর্ণ হওয়ার পর পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে তা শিথিল হচ্ছে বৃহস্পতিবার। ২২ জুলাই পর্যন্ত আট দিন শিথিল থাকবে।প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, ‘আর্মি ইন এইড টু সিভিল পাওয়ার’ বিধানের আওতায় মাঠ পর্যায়ে কার্যকর টহল নিশ্চিত করার জন্য সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ প্রয়োজনীয় সংখ্যক সেনা মোতায়েন করবে।জেলা ম্যাজিস্ট্রেট স্থানীয় সেনা কমান্ডারের সাথে যোগাযোগ করে বিষয়টি নিশ্চিত করবেন।প্রজ্ঞাপনে আরো বলা হয়, ২১ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট জেলা পর্যায়ে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নিয়ে সমন্বয় সভা করে সেনাবাহিনী,বিজিবি/কোস্টগার্ড, পুলিশ, র্যা ব ও আনসার নিয়োগ ও টহলের অধিক্ষেত্র, পদ্ধতি ও সময় নির্ধারণ করবেন। সেই সঙ্গে স্থানীয়ভাবে বিশেষ কোনো কার্যক্রমের প্রয়োজন হলে সে বিষয়ে পদক্ষেপ নেবেন।সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়/বিভাগসমূহ এ বিষয়ে মাঠ পর্যায়ে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদান করবে।এতে আরও বলা হয়, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় মাঠ পর্যায়ে প্রয়োজনীয় সংখ্যক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের বিষয়টি নিশ্চিত করবে।সংক্রামক রোগ (প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল) আইন, ২০১৮-এর আওতায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ব্যবস্থা নিতে জেলা প্রশাসন ও পুলিশ বাহিনীকে আইনানুগ কার্যক্রম গ্রহণের প্রয়োজনীয় ক্ষমতা প্রদান করবেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *