স্বামী ছেড়ে মামী করল ভাগ্নে কে বিয়ে! সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হল ভিডিও।

জীবনে অনেকেরই প্রেম আসে। মানুষ সেই ভালোবাসার মানুষকে কাছে রাখার জন্য নিজের সাধ্যের বাইরে গিয়েও চে’ষ্টা করে থাকে। যখন মানুষ সত্যিই

কাউকে ভালোবাসে ঠিক ভুল এর বিচার করে না। ভালোবাসার অনেক গল্পই হয়তো শুনেছেন। কিন্তু আজ আমর’া আপনাদের এমন এক সত্য ঘটনা বলব যা হিন্দি সিনেমাকে হার মানায়।

এই ঘটনাটি বিহারের জমুই জেলার। আসলে এক মহিলা তাঁর ননদের ছেলে অর্থাৎ ভা’গ্নের প্রেমে পড়ে যায়। মামী ভা’গ্নের প্রেম এত গভীর ছিল যে তাঁরা বিয়ে করে নেয়।

সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে তাঁরা এই খবর তাঁদের পরিবারকে জানায়। তাঁদের ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে যে ভা’গ্নে চন্দন কুমা’র তার মামীকে সিঁদুর পড়াচ্ছে।

চন্দন কুমা’র আর তার মামীর গত কয়েক বছর ধরেই প্রেমের সম্পর্ক চলছে। পাওয়া খবর অনুযায়ী চন্দন কুমা’র মুম্বাই তে অটো চালায়। তার মামাও সেখানে থাকে। এই সময়েই তাঁদের সম্পর্ক শুরু হয়ে যায়। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে মামী ভা’গ্নের পা ছুঁয়ে প্রণাম করে স্ত্রী ধর্মের পালন করেন।

লকডাউনের কারণে তাঁরা মুম্বাই থেকে নিজের বাড়ি বিহারে চলে আসেন। বিহারে ফিরে আসার কিছুদিন পর চন্দনের মামা তাকে আর তার মামীকে লক্ষীসরায়ের

মননপুরে নিজের বাড়িতে এক সাথে দেখে ফেলে। এরপর থেকেই শুরু হয় ঝামেলা। তাঁদের আলাদা করার পুরো চে’ষ্টা চলতে থাকে। কিন্তু তাঁরা একে অ’পরকে না ছাড়ার প্রতিজ্ঞাব’দ্ধ ছিলেন।তাই তাঁরা ঠিক করেন তাঁরা পালিয়ে যাব’েন। সেই অনুযায়ী তাঁরা বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে গিয়ে এক মন্দিরে বিয়ে করে নেন। তাঁদের বিয়ের সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পাশাপাশি মানুষ তাঁদের কটাক্ষ করতেও ছাড়ছে না। কিন্তু তাঁদের এতে কোনো মাথা ব্যথা নেই। তাঁরা একে অ’পরের সাথে থাকতে চেয়েছে আর তাতে তার সমর’্থ হয়েছে। আপনাদের কী মনে হয়? এই ঘটনার প্রেক্ষিতে আপনাদের মূল্যবান মতামত আমা’দের জানান।।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *