নেটের পোশাকে দেখা যাচ্ছে শরীরের নিচের অংশ, ব্যাগ দিয়ে ঢাকলেন

প্রিয়াঙ্কা চোপড়া এবং তাঁর ফ্যাশন সেন্স ক্রমশ হাই ফ্যাশনের দিকে অগ্রসর হয়েছে।বিশেষত হলিউডে কাজ শুরু করার পরই প্রিয়াঙ্কার ফ্যাশন নিয়ে শুরু হয়েছে বিভিন্ন গবেষণা।

ওয়েস্টার্ন পোশাকে নিজেকে নিত্যদিন ভিন্ন কায়দায় তুলে ধরছেন।ক্যান চলচ্চিত্রক উৎসব, মেট গালায় প্রিয়ঙ্কার ভারতকে ফ্যাশনে মানচিত্রে পাকাপোক্ত জায়গা করে দেন।

তবে এই ফ্যাশনের কারণেই তাঁকে ভুগতে হয়েছে বহুবার। ওয়ারড্রোব ম্যালফাংশনের কবলে পড়তে হয়েছে দেশী গার্লকে।

এখন প্রিয়াঙ্কা বেশিরভাগ সময়ই বিদেশি ডিজাইনারদের পোশাকই পরে থাকেন। বিদেশি ব্র্যান্ড ছাড়া তেমন অ্যাকসেসরিজও ব্যবহার করেন না।

এ বছর গোল্ডেন গ্লোব অনুষ্ঠানের পর প্রিয়াঙ্কা আফ্টার পার্টিতে এমনই এক পোশাক পরেছিলেন যা দেখে চোখ কপালে উঠেছিল ভক্তদের।

কালো রঙের নেটের মিডি ড্রেস পরেছিলেন প্রিয়ঙ্কা। লন্ডনের ডিজাইনার ব্র্যান্ড কুখারেভার পোশাক পরেছিলেন দেশী গার্ল।

যা উপর দিক দেখে টার্টেল নেক হলেও নিচের দিকটি ছিল সাংঘাতিক। কোমরের দিকে ছিল একটি ফ্লোরাল প্রিন্ট ধরণের ডিজাইন।

নিচের দিকটি সম্পূর্ণ নেটের থাকায় পোশাকের এপার ওপর ছিল একেবারে স্পষ্ট। দেখা যাচ্ছিল তাঁর উরু, কোমরের নিচের অংশ।টোনড লেগস দেখাতে গিয়ে ওয়ারড্রোব ম্যালফাংশনের কোপে পড়েছিলেন প্রিয়ঙ্কা। তবে বাঁচিয়ে দিয়েছিল তাঁর একটি মিনি পার্স।নীল রঙের লেদারের একটি ছোট্ট ব্যাগ নিয়েছিলেন প্রিয়ঙ্কা। হাঁটতে গিয়ে পোশাক এদিক ওদিক হওয়ায় সাংঘাতিকভাবে চারিদিক দিয়ে বেরিয়ে আসছিল শরীরের বিভিন্ন অংশ।হাঁটতে গিয়ে সেই সমস্যা হওয়ায় নিজেই বুঝতে পেরে ব্যাগটি নিজের সামনে নিয়ে নেন। ব্যাগ দিয়েই ঢাকতে থাকেন শরীরের সেই অঙ্গগুলি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *